Sahittya

Literature magazine | Bangla & english worldwide

গুগল ডুডলে কবি শামসুর রাহমান

গুগল ডুডলে কবি শামসুর রাহমান

গুগল ডুডলে কবি শামসুর রাহমানকে স্মরণ

গুগল ডুডলে কবি শামসুর রাহমানকে স্মরণ

গুগলের হোমপেজে আজ মঙ্গলবার বিশেষ ডুডল দেখা যাচ্ছে। ডুডলটি গুগল তৈরি করেছে বাংলা সাহিত্যের অন্যতম প্রধান কবি শামসুর রাহমানকে নিয়ে। কবির ৮৯তম জন্মদিন উপলক্ষে এ ডুডল তৈরি করেছে গুগল।
ডুডলটিতে গুগল লেখাটিকে লাল সবুজে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। ইংরেজি গুগল লেখাটির ‘ও’ বর্ণের জায়গায় বসানো হয়েছে কবির মুখ। সেখানে সাদা চুল আর চশমা পরা কবি গালে হাত দিয়ে কবিতা লিখছেন— এমন দৃশ্য দেখানো হচ্ছে। কবির গায়ে সবুজ শার্ট আর হাতে ঘড়ি। পটভূমিতে নীলাকাশে সাদা মেঘের দৃশ্যপট। ডুডলে ক্লিক করলে শামসুর রাহমানকে নিয়ে সার্চের পাতায় নিয়ে যাচ্ছে।
গুগলের হোম পেজে দেখানো বিশেষ লোগো এ ডুডল। বিশেষ কোনো দিন বা বিশেষ কোনো ব্যক্তির জন্য সার্চ বক্সের ওপরে নিজেদের লোগো বদলে বিশেষ দিনটির সঙ্গে মানানসই নকশার যে লোগো তৈরি করে গুগল, তা–ই ডুডল।
ডুডল সম্পর্কে গুগল তাদের ডুডল পেজে কবি শামসুর রাহমানের ‘স্বাধীনতা তুমি’ কবিতার শেষ তিন লাইনের ইংরেজি অনুবাদ তুলে ধরেছে। এ ছাড়া সেখানে কবির জীবনবৃত্তান্তও দেখানো হচ্ছে। গুগলটি কেবল বাংলাদেশে প্রদর্শন করছে গুগল।
বাংলা সাহিত্যের অন্যতম প্রধান কবি শামসুর রাহমানের ৮৯তম জন্মবার্ষিকী আজ ২৩ অক্টোবর। ১৯২৯ সালের এই দিনে তিনি ঢাকার মাহুতটুলিতে জন্ম নিয়েছিলেন। কবি শামসুর রাহমানের বাবা মুখলেসুর রহমান চৌধুরী, মা আমেনা বেগম। নানাবাড়িতে জন্ম নেওয়া কবির পৈত্রিক বাড়ি নরসিংদী জেলার রায়পুরা থানার পাড়াতলী গ্রামে। তবে তিনি ঢাকায় বেড়ে উঠেছেন। তেরো জন ভাই-বোনের মধ্যে তিনি ছিলেন চতুর্থ।
আধুনিক বাংলা কাব্যের অন্যতম প্রধান কবি শামসুর রাহমানের পড়াশোনায় হাতেখড়ি পোগোজ স্কুলে। ঢাকা নগরেই তাঁর বেড়ে ওঠা। নাগরিক কষ্ট, দুঃখ-সুখ তাঁর কবিতায় বিশেষভাবে উঠে এসেছে।
জীবনের সত্য-সুন্দরকে তুলে ধরার ক্ষেত্রে তিনি ছিলেন অনন্য। পাশাপাশি বাঙালির সব আন্দোলন-সংগ্রামের গৌরবদীপ্ত অধ্যায় ফিরে ফিরে এসেছে তাঁর কবিতায়। তাঁর প্রথম কাব্যগ্রন্থ প্রথম গান দ্বিতীয় মৃত্যুর আগে প্রকাশিত হয়েছিল ১৯৬০ সালে। উল্লেখযোগ্য কাব্যগ্রন্থ : রৌদ্র করোটিতে (১৯৬৩), বিধ্বস্ত নীলিমা (১৯৬৭), বন্দী শিবির থেকে (১৯৭২), দুঃসময়ে মুখোমুখি (১৯৭৩), ফিরিয়ে নাও ঘাতক কাটা (১৯৭৪), এক ধরনের অহংকার (১৯৭৫), আমি অনাহারী (১৯৭৬), বাংলাদেশ স্বপ্ন দ্যাখে (১৯৭৭), ইকারুসের আকাশ (১৯৮২) এবং উদ্ভট উটের পিঠে চলেছে স্বদেশ (১৯৮৩), যে অন্ধ সুন্দরী কাঁদে (১৯৮৪), অস্ত্রে আমার বিশ্বাস নেই (১৯৮৫), ধুলায় গড়ায় শিরস্ত্রাণ (১৯৮৫), দেশদ্রোহী হতে ইচ্ছে করে (১৯৮৬), সে এক পরবাসে (১৯৯০), খণ্ডিত গৌরব (১৯৯২), মানব হৃদয়ে নৈবদ্য সাজাই (১৯৯৬), সৌন্দর্য আমার ঘরে (১৯৯৮), ভগ্নস্তূপে গোলাপের হাসি (২০০২), গোরস্থানে কোকিলের করুণ আহবান (২০০৫), না বাস্তব না দুঃস্বপ্ন (২০০৬) ইত্যাদি। ৬০টি কাব্যগ্রন্থসহ প্রকাশিত গ্রন্থ শতাধিক।
ব্যক্তিজীবনে শামসুর রাহমান পেশায় সাংবাদিক ছিলেন। ১৯৫৭ সালে দৈনিক মর্নিং নিউজ-এ সহসম্পাদক হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন। ১৯৫৭ থেকে ১৯৫৯ সাল পর্যন্ত রেডিও পাকিস্তানের অনুষ্ঠান প্রযোজক ছিলেন। দৈনিক বাংলার সম্পাদক হিসেবে কাজ করেছেন অনেকদিন। তিনি মজলুম আদিব (বিপন্ন লেখক) ছদ্মনামে লিখতেন।
কবি বাংলা একাডেমি পুরস্কার (১৯৬৯), একুশে পদক (১৯৭৭) এবং স্বাধীনতা পদক (১৯৯১)-সহ দেশ-বিদেশের অনেক পুরস্কার অর্জন করেন। ২০০৬ সালের ১৭ আগস্ট তিনি মারা যান।
উল্লেখ্য, এর আগে বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবস, প্রখ্যাত স্থপতি এফ আর খানের জন্মদিন, হুমায়ূন আহমেদ, বেগম রোকেয়াসহ বেশ কিছু উল্লেখযোগ্য ডুডল প্রকাশ করেছে গুগল।
তথ্যসূত্র : গুগল, দি ডেইলি স্টার, প্রথম আলো, যুগান্তর, ২৩ অক্টোবর ২০১৮

Share us

সম্পাদক

Jebunnahar Joni

জেবুননাহার জনি। Jebunnahar joni. কবি ও গল্পকার। জন্ম : ১১ জানুয়ারি, নারায়ণগঞ্জ; পৈতৃকনিবাস মাদারীপুর। পিতা : আতাউর রহমান হাওলাদার, মাতা : নুরুননাহার খান। সমাজকল্যাণে বিএ সম্মানসহ এমএ। পেশা : শিক্ষকতা। লেখার বিষয় : কবিতা ও গল্প। প্রকাশিত গ্রন্থ : মেঘলা রাতে চাঁদ (গল্প, ২০০৭), বিরান পথের কাশবন (কবিতা, ২০১৭)। পুরস্কার : গাংচিল সাহিত্য পুরস্কার (২০১১), সমধারা সাহিত্য পুরস্কার (২০১৫)।